আত্নরক্ষার কৌশল শিখছে রোবট সাপ!

কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদলের ডেভলপ করা এক প্রকার রোবট সাপ সম্প্রতি নতুন এক কৌশল শিখেছে। একে আত্নরক্ষার উপায় হিসেবেই ধরে নেয়া যায়। গত সপ্তাহে বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োরোবটিক্স ল্যাব থেকে প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা যায়, ডিভাইসটি কোন বস্তুর দিকে ছুঁড়ে মারলে আঘাত লাগার সাথে সাথে সেটি উক্ত বস্তুকে (গাছের ডাল, খুঁটি- যাই হোকনা কেন) আঁকড়ে ধরে ফেলে যাতে নিরাপদে সেখানে অবস্থান করতে পারে!প্রতিষ্ঠানটির বায়োরোবটিক্স ল্যাবরেটরি কয়েক বছর ধরেই যান্ত্রিক সাপ তৈরির প্রকল্প নিয়ে কাজ করে আসছে।

এর প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে রোবটকে সরীসৃপ প্রাণীদের মত স্বাভাবিক চলাচলে দক্ষ করে তোলা। এসব রোবট উন্নয়ন সম্ভব হলে দুর্গম স্থানে পাঠিয়ে বিভিন্ন মিশন সফল করা সহজ হবে। ভবিষ্যতে রোবটগুলোকে “সেলফ লার্নিং ডিভাইস” হিসেবে তৈরি করতে পারলে এরা আশেপাশের পরিস্থিতি বুঝে কাজ করতে পারবে।কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐ রোবট সাপের আরও দুটি উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য হচ্ছে কর্কস্ক্রুয়িং এবং পাইপ রোলিং। কর্কস্ক্রুয়িংয়ের মাধ্যমে এটি দুই পৃষ্ঠতলের মধ্যে দেহকে পেঁচিয়ে রেখে সামনের দিকে আগাতে সক্ষম। আর পাইপ রোলিং ক্ষমতা ব্যবহার করে রোবটটি কোন পাইপসদৃশ বস্তুর চারদিকে জড়িয়ে নিরাপদে এগিয়ে যেতে পারে।বিজ্ঞানীরা এমন এক রোবট সাপ উন্নয়ন করতে চাচ্ছেন যা সাঁতার কাটতে, যেকোন পৃষ্ঠে চলাচল করতে এবং একই সাথে পরিবেশের তারতম্যে মানিয়ে নিতে পারবে। যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর আর্থিক সহযোগিতায় পরিচালিত এই গবেষণা উদ্ধার কার্যক্রম ছাড়াও পারমাণবিক এবং অন্যান্য শিল্পকারখানায় ব্যবহারোপযোগী করে তোলার চেষ্টা চলছে।

মতামত

comments

Post Author: admin