৫০০ বছরেরও বেশি পুরাতন এক কাঠের মসজিদ।ছুবাহানাআল্লাহ

তুরস্কের বিখ্যাত পর্যটন এলাকার নাম উর্দু। শহরটি তুরস্কের উত্তরাঞ্চল কৃষ্ণ সাগরের পাশে অবস্থিত। ওই এলাকায় রয়েছে ৫০০ বছরের প্রাচীন কাঠ দ্বারা নির্মিত অনেকগুলো মসজিদ। যেগুলো দেখতে পর্যটকরা ভিড় করে থাকেন।

এসব মসজিদ ওই এলাকার ঐতিহ্যের অংশবিশেষ। আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে, কাঠ দ্বারা নির্মিত এ সব মসজিদ নির্মাণের জন্য ব্যবহৃত কাঠে কোনো প্রকার পেরেক অথবা সংযোগকারী হিসেবে লৌহজাত সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়নি। বিশেষ পেরেক ব্যবহার করা হয়েছে।

প্রাচীন এ সব কাঠের মসজিদ সেলজুক এবং অটোম্যান শাসনামলে নির্মিত হয়েছে। সাগর তীরের এলাকা হওয়ায় বিশেষ প্রযুক্তির ব্যবহার করে এ সব কাঠের মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে। যেন, সাগরের লোনা পানি ও অত্যাধিক রোদ কিংবা তাপদাহ কাঠের ক্ষতি করতে না পারে।

অবাক করার মতো বিষয় হলো, প্রাচীন এই মসজিদগুলোর কয়েকটিতে এখনও জামাত সহকারে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করা হয়।

উর্দু এলাকায় এমন মসজিদের সংখ্যা প্রায় ৭০টি। তবে দীর্ঘদিন অতিবাহিত, পরিবেশগত সমস্যা ও আবহাওয়ার কারণে বেশ কয়েকটি মসজিদ পুনঃর্নির্মাণ করার প্রয়োজন দেখা দিয়েছে।

উর্দু আরেকটি কারণে বিখ্যাত। কারণ তুরস্কের উর্দু অঞ্চলে পৃথিবীর তৃতীয় সমুদ্র বিমানবন্দর নির্মাণ করা হয়েছে। এটি ইউরোপের প্রথম সমুদ্র বিমানবন্দর।

উর্দু এলাকাটি পাহাড়ি অঞ্চল হওয়ার কারণে স্থলভাগে বিমানবন্দর নির্মাণ করা অসম্ভব। তাই সমুদ্রে ৩৬ মিলিয়ন টন পাথর দিয়ে সাত কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ও তিন কিলোমিটার প্রশস্ত এলাকা ভরাট করে বিমানবন্দরটি নির্মাণ করা হয়।

 

মতামত

comments

Post Author: admin