গাঁজা কি সৃজনশীলতা বাড়ায়? গবেষণায় মিলেছে ভয়ংকর তথ্য।

অনেকেরই ধারণা, গাঁজা সৃজনশীলতা বাড়ায়। আর এ কারণে সৃজনশীল কাজে উৎসাহী কিছু মানুষ গাঁজা গ্রহণ করেন। তবে বাস্তবে গাঁজা কী সৃজনশীলতা বাড়ায়? সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, এর বিপরীত চিত্র। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

গাঁজা সৃজনশীলতা বাড়ায় মনে করে অনেক সৃজনশীল কাজে নিয়োজিত ব্যক্তি তা গ্রহণ করেন। তবে গবেষকরা বলছেন, এটি মোটেই সৃজনশীলতা বাড়ায় না। বরং গাঁজা সৃজনশীলতার বিপরীত কাজ করে।
সৃজনশীল কাজ যারা করেন, তারা গাঁজা গ্রহণ করলে সৃজনশীলতা বাড়ে না বরং নষ্ট হয়ে যায়। আর এ বিষয়টি সৃজনশীল কাজ করে যারা জীবিকা নির্বাহ করেন তাদের জন্য ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে। কারণ মস্তিষ্কের স্থায়ী ক্ষতি করে গাঁজা।

কিন্তু কী কারণে গাঁজা সৃজনশীলতা নষ্ট করে? গবেষকরা জানিয়েছেন, সৃজনশীলতার জন্য মস্তিষ্কের ‘ব্রেইনস্টর্ম’ কার্যক্রম খুবই প্রয়োজনীয়। কিন্তু গাঁজা সেবনে এ কাজটির গতি কমে যায়। ফলে সৃজনশীলতাও কমে আসে।

এই বিষয়গুলোর উপর ভিডিও বা স্বাস্থ্য বিষয়ক ভিডিও দেখতে চাইলে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ঠিকানা: – 

এ বিষয়ে গবেষণা করেছেন নেদারল্যান্ডসের লেইডেন ইউনিভার্সিটির গবেষক মিকায়েল কোয়াল। তিনি বলেন, ‘এ বিষয়টি খুব প্রচলিত বিশ্বাস যে, ড্রাগ মস্তিষ্কের সৃজনশীলতা বাড়ায়। এ গবেষণায় দেখা গেছে, বিষয়টি মোটেই সঠিক নয়।’

গবেষক কোয়াল আরও জানান, ক্রনিক ড্রাগ ব্যবহারকারীদের ভুলের হারও বেড়ে যায়। অর্থাৎ গাঁজা সেবনকারীরা কাজে বেশিমাত্রায় ভুল করে এবং ভুল নির্ণয় করার ক্ষমতাও কমে যায়।

শুধু তাই নয়, গবেষকরা গাঁজার আরও কিছু ক্ষতিকর বিষয় নির্ণয় করেছেন। এর মধ্যে অন্যতম হলো নতুন বিষয় শেখার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে গাঁজার মতো মাদক। আর এ কারণে গাঁজাসেবীরা নতুন বিষয় আয়ত্ব করতে সমস্যায় পড়ে।

এ ছাড়া মস্তিষ্কে যে প্রক্রিয়ায় স্মৃতিশক্তি সঞ্চয় করে, তাতে বাধ সাধে গাঁজা। বেশ কিছু গবেষণায় বলা হয়, স্মৃতিশক্তি কমিয়ে দেয় গাঁজা।

গাঁজা বিষণ্নতা আনে বা বিষণ্ন মানুষ গাঁজায় আসক্ত হয় এমন বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে গবেষণায় বলা হয়, যারা বিষণ্নতায় ভোগে, গাঁজা তাদের এ সমস্যা আরো বৃদ্ধি করতে পারে।

মতামত

comments

Post Author: admin